আদিবাসীকে গণপিটুনিতে হত্যার সময় সেলফি

|

চুরি অভিযোগ বেঁধে বেধড়ক গণপিটুনিতে হত্যা করা হয়েছে ভারতের আত্তাপ্পাড়ি আদিবাসী গোষ্ঠীর এক ব্যক্তিকে। এই ভিডিওটি ইন্টারনেট দুনিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর সমালোচনার মুখে নির্মম সেই দৃশ্যের সঙ্গে সেলফি তোলা দুই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ভারতের দক্ষিণ-পশ্চিম রাজ্য কেরালার পালাক্কাদ জেলায় এ ঘটনাটি ঘটেছে। এই ঘটনার ভিডিও দেখার পর পুরো রাজ্য জুড়ে ব্যাপক আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। এর কিছু অংশ টিভিতেও প্রচার করা হয়েছে।

স্থানীয় পুলিশের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা প্রতীশ কুমার বিবিসিকে জানিয়েছে, এক ব্যক্তিকে আক্রমন করা হচ্ছে এমন তথ্য পাওয়া সাথে পুলিশের একটি দল দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে। তিনি আরও জানান, পুলিশ মধু নামের ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে দ্রুত হাসাপাতালে পাঠানোর পথে সে মারা যায়।

আদিবাসীদের বিষয়ক কর্মী ধনইয়া রামান বিবিসি হিন্দিকে বলেন, “এমন একটি অবস্থায় একজন মানুষের পক্ষে সেলফি তোলা অপর একজন মানুষের প্রতি সবচেয়ে ঘৃণ্য কাজ।”

একে কেরালার প্রগতিশীল সমাজের ওপর ‘কালিম লেপন’ উল্লেখ করে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাভি বিজয়ন এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ‘কঠোর ব্যবস্থা’ গ্রহণের কথা বলেছেন।

কেরালার জনপ্রিয় অভিনেতা মামুতি এক ফেসবুক বার্তায় বলেন, “মধুর মৃত্যুর জন্য আমাদের পুরো কাঠামো…. একটি কাঠামো যেখানে জনতা আইন তুলে নিতে বলে। একজন মানুষ হয়ে অপর একজন মানুষকে আক্রমন করা মনুষ্যোচিত কোনো কাজ নয়। কীভাবে আমরা নিজেদের আধুনিক এবং প্রগতিশীল বলে দাবি করতে পারি।”

যমুনা অনলাইন: এফএইচ









Leave a reply