পান্তা ভাত পরিবেশন করে মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়ায় তৃতীয় হলেন কিশোয়ার চৌধুরী

|

গ্রান্ড ফিনালের দুই প্রতিযোগী জাস্টিন নারায়ণ ও পেট ক্যাম্পবেলের সাথে কিশোয়ার চৌধুরী। ছবি: সংগৃহীত।

মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়ার গ্র্যান্ড ফিনালে তৃতীয় হয়েছেন ‘পান্তা ভাত’ ও আলুভর্তা পরিবেশন করে প্রশংসিত হওয়া বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কিশোয়ার চৌধুরী। প্রতিযোগিতায় আলু ভর্তা ও সার্ডিন মাছের সঙ্গে পান্তা ভাত পরিবেশন করে বিচারকদের বিস্মিত করে দশে দশ পেয়েছিলেন তিনি।

আজ মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়ার গ্র্যান্ড ফিনালের সরাসরি সম্প্রচারে প্রতিযোগিতার ফলাফল ঘোষণা করা হয়। যেখানে প্রথম হন ভারতীয় বংশোদ্ভুত জাস্টিন নারায়ণ এবং দ্বিতীয় হন পিট ক্যাম্পবেল। তৃতীয় স্থান অধিকার করে নেন কিশোয়ার চৌধুরী।

ঘরোয়া রাঁধুনি কিশোয়ারের পান্তা ভাতের রেসিপি ‘স্মোকড রাইস ওয়াটার’ হিসেবে পরিবেশিত হয় ওই প্রতিযোগিতায়। খাবারটি দেখে বিচারকেরা এটিকে ঐতিহ্যবাহী ও শক্তিশালী খাবার হিসেবে উল্লেখ করেন।

কিশোয়ারের পান্তা ভাত পরিবেশনের ভিডিও আপলোড করা হয় মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়ার অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে। এরপরই তা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ে। গ্র্যান্ড ফিনালের মঞ্চে বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী খাবারের প্রদর্শনী তুলে ধরাকে সাহসী পদক্ষেপ উল্লেখ করে কিশোয়ারের প্রশংসা করছেন অনেকেই।









Leave a reply