মুক্তিযোদ্ধা ফেরদৌসি প্রিয়ভাষিণী আর নেই

|

মুক্তিযোদ্ধা-ভাস্কর, বীরাঙ্গনা ফেরদৌসি প্রিয়ভাষিণী আর নেই। তিনি রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। আজ রোববার দুপুরে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

গত ৮ নভেম্বরে বাসায় পড়ে গিয়ে গোড়ালিতে আঘাত পান ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিনী। তাকে ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ছাড়া কিডনিসহ বিভিন্ন জটিলতায় গুরুতর ভুগছিলেন তিনি।

এদিকে জানানো হয়, ৮ মার্চ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা জানানোর পর বাদ যোহর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদে জানাযা নামায অনুষ্ঠিত হবে । তারপর মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে দাফন করা হবে।

১৯৪৭ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি খুলনায় জন্ম প্রিয়ভাষিণী, একাত্তরে পাকিস্তানি বাহিনীর হাতে নির্যাতিত হন। তিনি ইউএনডিপি, ইউএনআইসিইএফ, এফএও, কানাডিয়ান দূতাবাস প্রভৃতি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেছেন। শেষ বয়সে এসে নানা শিল্পকর্ম সৃষ্টিতে মনোনিবেশ করেন এবং তা অবিরামভাবে অব্যাহত রাখেন।

স্বাধীনতা যুদ্ধে তার অবদানের জন্য ২০১৬ সালে বাংলাদেশ সরকার তাঁকে ‘মুক্তিযোদ্ধা’ হিসেবে সন্মানিত করে। এর আগে ২০১০ সালে তিনি রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মান স্বাধীনতা পদক পান প্রিয়ভার্ষিণী।









Leave a reply