বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে অপরাধমুক্ত এলাকা ঘোষণা

|

প্রথমবারের মত বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের ৮ দশমিক ৩ কিলোমিটার এলাকাকে অপরাধমুক্ত এলাকা বা ক্রাইম ফ্রি জোন ঘোষণা করা হয়েছে। দুপুরে এ বিষয়ে বিজিবি ও বিএসএফ মহাপরিচালক পর্যায়ে বৈঠকের পর এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়।

যশোরের শার্শা ও ভারতের উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার বনগাঁও সীমান্তের কল্যাণী বিওপি’র নিয়ন্ত্রিত সীমান্ত এলাকাকে ‘ক্রাইম ফ্রি জোন’ঘোষণা করা হয়।

এছাড়াও বাংলাদেশের যশোর সীমান্তের পুটখালী ও দৌলতপুর এবং ভারতের কল্যাণী ও গুনারমঠ সীমান্ত এই জোনের আওতায় থাকবে।

গত বছরের অক্টোবরে নয়াদিল্লিতে বিজিবি-বিএসএফ বৈঠকে দুই দেশের সীমান্তের অপরাধ প্রবণ অঞ্চলে ক্রাইম ফ্রি জোন ঘোষণার প্রস্তাব তোলেন বিজিবি মহাপরিচালক। অপরাধ প্রতিরোধে সিসিটিভি ক্যামেরা, থার্মাল ইমেজ ও সার্চ লাইট স্থাপন করা হয়েছে। পাশাপাশি বাড়ানো হয়েছে জনসচেতনতাও। পর্যায়ক্রমে সীমান্তের অন্যান্য এলাকাও ‘ক্রাইম ফ্রি জোন’ ঘোষণা করতে একসাথে কাজ করছে বিজিবি ও বিএসএফ।









Leave a reply