বিদেশে বসে মনগড়া কথা লিখছেন: সিনহাকে কাদের

|

সাবেক হয়ে গেছেন। বই লিখে মনগড়া কথা শোনাচ্ছেন বিদেশে বসে। সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহাকে উদ্দেশ্য করে এমন মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

বৃহস্পতিবার সকালে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে পিরোজপুর জেলা আওয়ামী লীগের নেতাদের সাথে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন ক্ষমতায় না থাকার অন্তর্জালা মেটানোর জন‍্যই এসব বলছেন তিনি। সত‍্যই যদি বলবেন তবে, যখন প্রধান বিচারপতি ছিলেন তখন বলেননি কেন? দেশে এসে কেন বলেননি?

সম্প্রতি সিনহা’র ‘এ ব্রোকেন ড্রিম: রুল অব ল, হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড ডেমোক্রেসি’ বইটি প্রকাশ পায়। সেখানে তিনি অভিযোগ করেন, সরকারি একটি সংস্থার হুমকি ও ভীতি প্রদর্শনের মুখে তিনি দেশ ছেড়েছেন। সংবিধানের ১৬তম সংশোধনী বাতিলের রায়টি যেন সরকারের পক্ষ যায়, সেজন্যে সরকারের সর্বোচ্চ মহল থেকে চাপ তৈরি করা হয়েছিল বলে দাবি করেছেন এস কে সিনহা।

প্রধান বিচারপতির সরকারি বাসভাবনে তাকে আবদ্ধ রাখা হয়েছিল দাবি করে লিখেছেন, আইনজীবী ও বিচারকদের সেসময় তার সাথে দেখা করতে দেয়া হচ্ছিল না। অথচ সংবাদমাধ্যমকে বলা হয় – তিনি অসুস্থ, তিনি চিকিৎসার জন্য ছুটি চেয়েছেন। অনেক মন্ত্রী তাকে বিদেশে চিকিৎসার জন্যে যেতে বলেন বলেও দাবি করেন এস কে সিনহা। তাকে ভীতি প্রদর্শন ও পরিবারের প্রতি হুমকি দেয়ায়, বিদেশ থেকে পদত্যাগপত্র জমা দিতে বাধ্য হন তিনি।

এদিকে, বিএনপি আন্দোলনের নামে দেশে বিদেশে নাশকতার ষড়যন্ত্র উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপি সরকার নামানোর চক্রান্ত করছে। তিনি বলেন, যারা ২০০১ সালের মত নির্বাচন চায় তারা ভুলে যাচ্ছে ২০০১ আর ২০১৮ এক না।

নিজ দলের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের উদ্দেশ্যে আওআমী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন নির্বাচনে জিততে হলে নিজেরা নিজেদের ঠেকাবেন না, সুস্থ প্রতিযোগিতা করবেন। প্রত‍্যেকের আমলনামা আছে। জনমত জরিপে যিনি এগিয়ে থাকবেন সেই মনোনয়ন পাবে। নিজেরা নিজেদের শত্রু ভেবে অশুভ কিছু করার পরিকল্পনা করবেন না।

ওবায়দুল কাদের বলেন, নেতায় নেতায় ঐক‍্য হলে জনতার মাঝে তার কোনো প্রতিফলন হবে না। যত নেতাই ঐক‍্য হোক তাতে কোনো প্রভাব পড়বে না।

জাতিসংঘে বিএনপিকে আমন্ত্রণের বিষয়ে তিনি বলেন, আমন্ত্রণ করেনি এটা প্রমাণিত। এটা নিয়ে তারা যে মিথ‍্যাচার করেছে, এটা দেশের জনগণ, গণতন্ত্র, ও দেশকে ছোট করেছে।

যমুনা অনলাইন: এফএম









Leave a reply