খাশোগি বেরিয়ে গেছেন- এমন তথ্য দিয়ে গাঁ বাঁচাতে পারবে না সৌদি কনস্যুলেট: এরদোগান

|

নিখোঁজ হওয়ার আগে সাংবাদিক জামাল খাশোগি ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেট ত্যাগ করেছিলেন- এটি সৌদি আরবকেই প্রমাণ করতে হবে। সোমবার, সংবাদ সম্মেলনে এই হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান।

এজন্য সিসিটিভি ফুটেজ দেখতে চেয়েছেন তিনি। তুর্কি পুলিশের দাবি, কনস্যুলেটেই বির্তকিত এই সাংবাদিককে হত্যা করা হয়েছে। পরে, মরদেহ বাইরে সরিয়ে নেয়া হয়। মঙ্গলবার, ব্যক্তিগত কাগজপত্রের জন্য খাশোগি সৌদি কনস্যুলেটে যান; সেদিন সেখানে সৌদি আরব থেকে এসেছিলেন আরও ১৫জন। তাই, খাশোগির গায়েব হয়ে যাওয়াকে পূর্ব-পরিকল্পিত বলছে আঙ্কারা। ইয়েমেনে সৌদি জোটের অভিযান ও যুবরাজের কট্টর সমালোচক ছিলেন ৬০ বছর বয়সী জামাল খাশোগি। প্রাণভয়ে যুক্তরাষ্ট্রে স্বেচ্ছা-নির্বাসনে ছিলেন তিনি।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান বলেন, খাশোগি বেরিয়ে গেছেন- এমন তথ্য দিয়ে গাঁ বাঁচাতে পারবে না সৌদি কনস্যুলেট। ভিডিও ফুটেজ বা উপযুক্ত তথ্য-প্রমাণের মাধ্যমে প্রমাণ দিতে হবে। যারা তুর্কি প্রশাসনকে জিজ্ঞাসা করছেন, জামাল খাশোগি কোথায়? তাদের সৌদি প্রশাসনের দিকে প্রশ্ন ছোঁড়া উচিৎ- কিভাবে সাংবাদিককে তারা উধাও করলো? কারণ, কনস্যুলেট ও বিমানবন্দরের সিসিটিভি ফুটেজ আমাদের হাতে; তদন্ত করছেন পুলিশ-গোয়েন্দারা।









Leave a reply