মাওলানা আহমদ শফীকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান

|

মাওলানা আহমদ শফীকে অবিলম্বে তার বক্তব্য প্রত্যাহার করে জাতির কাছে ক্ষমা চাওয়ার আহবান জানিয়েছে নারী শ্রমিক নেতৃবৃন্দ। আজ সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক মানববন্ধনে এই আহবান জানান তারা।

এসময় নারীর প্রতি অশোভন ও কটুক্তি করায় আহমদ শফীর বিচারের দাবি জানানো হয়। এছাড়া, নোয়াখালীর সুবর্ণচরসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় নারী- শিশু ধর্ষণ ও হত্যায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান নারী শ্রমিক নেতৃবৃন্দ। তারা বলেন, এসব ঘটনায় দোষী যেই হোক দ্রুত বিচারের আওতায় এনে শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

গত শুক্রবার জুমার নামাজের পর চট্টগ্রামের হাটাজারি মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে মেয়েদেরকে স্কুল-কলেজে না দিতে এবং দিলেও সর্বোচ্চ চতুর্থ থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ানোর ওয়াদা নেন হেফাজতে ইসলামের আমির শাহ আহমদ শফি। আল্লামা শফি নিজে কওমি মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান। এর আগে তিনি মেয়েদেরকে তেঁতুলের সঙ্গে তুলনা করে সমালোচিত হয়েছিলেন।

ওই দিন আল্লামা শফি বলেন, ‘আপনাদের মেয়েদের স্কুল-কলেজে দেবেন না। ক্লাস ফোর বা ফাইভ পর্যন্ত পড়াতে পারবেন। আর বেশি যদি পড়ান… পত্র-পত্রিকায় দেখতেছেন আপনারা… মেয়েকে ক্লাস এইট, নাইন, টেন, এমএ, বিএ পর্যন্ত পড়ালে ওই মেয়ে কিছুদিন পর আপনার মেয়ে থাকবে না।’

‘তাই আপনারা আমার সাথে ওয়াদা করেন। বেশি পড়ালে আপনার মেয়েকে টানাটানি করে অন্য পুরুষ নিয়ে যাবে। এ ওয়াজটা মনে রাখবেন।’

এ সময় উপস্থিত মুসল্লিরা দুই হাত তুলে ওয়াদা করেন যে তারা তাদের মেয়েদেরকে বেশি পড়াবেন না।









Leave a reply