অসাম্প্রদায়িক ঐতিহ্য রক্ষার স্বার্থে মোদিকে বিদায় করার কোনো বিকল্প নেই

|

ভারতের অসাম্প্রদায়িকতার ঐতিহ্য রক্ষার স্বার্থে নরেন্দ্র মোদিকে বিদায় করার কোনো বিকল্প নেই। কলকাতার ব্রিগেড ময়দানের মহাসমাবেশে একথা বলেছেন দেশটির বিরোধী নেতারা।

আসন্ন নির্বাচনে বিজেপিকে ঠেকাতে মহাঐক্যের ডাক দিয়েছেন তারা।

আজ শনিবার পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে এক মঞ্চে দাঁড়ান ভারতের নানা প্রান্তের ২০টির বেশি বিরোধী দল।

ব্রিগেড ময়দানে এ বিশাল সমাবেশ পরিচালনা করেন মমতা নিজেই। এসময় সব বক্তাই সমালোচনা করেন মোদি সরকারের বিভাজন আর ধর্মভিত্তিক রাজনীতির।

দিল্লীর মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল বলেন, গত পাঁচ বছরে মোদি আর অমিত শাহ জুটি দেশের বেহাল দশা বানিয়েছেন। সাম্প্রদায়িকতার বীজ বুনেছে তারা।

অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইড়ু বলেন, সরকারের প্রতারণার হাজারটা উদাহরণ দেয়া যায়। কৃষকদের সাথেও ধোকাবাজি করেছে মোদি জোট। দারিদ্রে জর্জরিত কৃষকরা আজ আত্মহত্যার পথ বেছে নিচ্ছে। পেট্রোল, ডিজেল, গ্যাসের দাম বাড়ছে রোজ।

সমাবেশে বক্তব্য দেন সাবেক এক প্রধানমন্ত্রী, ৩ বর্তমান মুখ্যমন্ত্রীসহ সিনিয়র নেতারা। বিশাল এ সমাবেশে প্রতিনিধি পাঠায় দেশের প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস। সংহতি জানান মোদির দল বিজেপির কয়েকজন নেতাও।

সমাবেশে কংগ্রেস নেতা মল্লিকার্জুন খাড়গে বলেন, জনগণকে নিয়ে কোনো ভাবনাই নেই মোদি সরকারের। তারা কেবল ক্ষমতায় আসার ছক কষছেন। আমি শুধু একটা কথাই বলবো, গণতন্ত্রকে বাঁচাতে এক হয়ে লড়তে হবে আমাদের।

বিজেপি নেতা শত্রুঘ্ন সিনহা বলেন, আমাদের সবার একটাই উদ্দেশ্য পরিবর্তন। সংবিধান রক্ষায়, দেশকে এগিয়ে নিতে আমরা একত্রিত হয়েছি।

সভাপতির বক্তব্যে মমতা বলেন, বিজেপির বিদায় ঘণ্টা বেজে গেছে।









Leave a reply