চাঁপাই সীমন্তে বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা করলো বিএসএফ

|

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার ওয়াহেদপুর সীমান্তে রোববার গভীর রাতে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী-বিএসএফের গুলিতে টিপু (২০) নামে এক বাংলাদেশি রাখাল নিহত হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অবৈধভাবে সীমান্ত পাড়ি দেয়ায় যাতে কোনো আইনি জটিলতায় পড়তে না হয় এ জন্য ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে তড়িঘড়ি করে লাশ দাফন করে ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়েছে ওই পরিবারের লোকজন।

নিহত টিপু শিবগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম চর-পাঁকা এলাকার বিশ রশিয়া গ্রামের ফড়িং বিশ্বাসের ছেলে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রোববার সন্ধ্যা ৬টার দিকে টিপুসহ বেশ কয়েকজন বাংলাদেশি রাখাল গরু আনার জন্য ওয়াহেদপুর সীমান্ত দিয়ে অবৈধপথে ভারতে যায়।

রোববার দিবাগত রাত ১২টার দিকে ওয়াহেদপুর সীমান্তের ওপারে ভারতের অভ্যন্তরে বিএসএফ সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এতে টিপু ঘটনাস্থলেই মারা যান।

এ সময় অন্য রাখালরা টিপুর লাশ নিয়ে বাংলাদেশে চলে আসেন। ভোররাতে তড়িঘড়ি করে তার লাশ স্বজনরা দাফন করে ফেলেন বলে এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে। এরপর থেকেই টিপুর বাড়ির লোকজন পলাতক রয়েছে। পাঁকা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য দুরুল হক জানান, বিএসএফের গুলিতে টিপু নামে একজন মারা গেছে বলে তিনি শুনেছেন। তবে, এ ব্যাপারে বিস্তারিত তিনি জানেন না বলে জানান।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ ৫৩ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল সাজ্জাদ সারোয়ার জানান, ভারতের জঙ্গিপুরে বিএসএফর গুলিতে এক বাংলাদেশি নাগরিক মারা গেছেন বলে তিনি শুনেছেন।

খবর পেয়ে সোমবার সকালে তিনি ওয়াহেদপুর সীমান্ত এলাকায় যান। কিন্তু যে ব্যক্তির মারা যাওয়ার খবর প্রচার হয়েছে তার বাড়িতে গিয়ে কাউকেই পাওয়া যায়নি। তাই ওই ঘটনায় কেউ মারা গেছে কি না তা এখনো নিশ্চিত হতে পারেনি বলে জানিয়েছেন লে. কর্নেল সাজ্জাদ সারোয়ার।

(সূত্র: যুগান্তর)









Leave a reply