ঢাবির ডিন নির্বাচনে আওয়ামীপন্থীদের নিরঙ্কুশ জয়

|

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০টি অভ্যন্তরীণ অনুষদের ডিন নির্বাচনে ৯টিতেই জয় পেয়েছে আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের নীল দল।

এর মধ্যে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় দুটি অনুষদে জয় পেয়েছেন তারা। আর কেবল ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি অনুষদে জয় পেয়েছে বিএনপি-জামায়াতপন্থী শিক্ষকদের সাদা দল। গতবারের নির্বাচনেও কেবল এই অনুষদটিতে জয় পেয়েছিল সাদা দল।

সোমবার সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে এই নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষে ফলাফল ঘোষণা করা হয়।

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নীল দল থেকে নির্বাচিতরা হলেন- বিশ্ববিদ্যালয়ের আর্থ অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্সেস অনুষদে অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল ও আইন অনুষদে অধ্যাপক ড. মো. রহমত উল্লাহ।

এর মধ্যে মাকসুদ কামাল টানা চতুর্থবারের মতো অনুষদটির ডিন হলেন। এর আগেও দুবার বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ডিন হয়েছিলেন তিনি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক কামাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ও সিন্ডিকেট সদস্য, মাস্টারদা’ সূর্যসেন হলের প্রাধ্যক্ষ, বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের সভাপতি এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নীল দলের আহ্বায়ক।

নির্বাচিত অন্যান্য ডিনরা হলেন- অধ্যাপক ড. আবু মো. দেলোয়ার হোসেন (কলা অনুষদ); অধ্যাপক ড. তোফায়েল আহমদ চৌধুরী (বিজ্ঞান অনুষদ); অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম (বিজনেস স্টাডিজ অনুষদ); অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিম (সামাজিকবিজ্ঞান অনুষদ); অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হক (জীববিজ্ঞান অনুষদ); অধ্যাপক ড. এস এম আব্দুর রহমান (ফার্মেসি অনুষদ); অধ্যাপক নিসার হোসেন (চারুকলা অনুষদ)। এরা সবাই নীল দল থেকে নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন। সাদা দল থেকে থেকে নির্বাচিত ডিন হলেন অধ্যাপক ড. মো. হাসানুজ্জামান (ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি অনুষদ)।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আদেশ, ১৯৭৩-এর ২৭ (৫) ধারা এবং অধ্যাদেশের (২য় খণ্ড) ১৮নং অধ্যায়ে বর্ণিত পদ্ধতি অনুযায়ী এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. কামাল উদ্দীন ভিসির প্রতিনিধি হিসেবে এই নির্বাচন পরিচালনা করেন।









Leave a reply