ফেনীতে নিম্মমানের সামগ্রী দিয়ে রাস্তা তৈরী করায় কাজ বন্ধ

|

ফেনী প্রতিনিধি:

ফেনী সদর উপজেলার লেমুয়া ইউনিয়নের একটি সড়কে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করায় কাজ বন্ধ করে দিয়েছেন প্রকল্প কর্মকর্তা। বুধবার দুপুরে এলাকাবাসীর প্রতিবাদের মুখে সরেজমিন পরিদর্শন করে প্রকল্প কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান কাজ বন্ধের নির্দেশ দেন।

সংশ্লিষ্টরা জানায়, সওদাগর পাড়া থেকে জলদাস বাড়ি পর্যন্ত ৬শ মিটার সড়কটি সলিং করতে সাড়ে ২৫ লাখ টাকা বরাদ্দ দেন সদর আসনের সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারী। সড়কটি নির্মাণের দায়িত্ব পান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান তালুকদার ও ইউপি সদস্য নিজাম উদ্দিন বাচ্চু। তারা নিজেরা কাজ না করে অপর ঠিকাদার জিয়াউদ্দিন ও তুহিন নামের দুইজনকে কাজের দায়িত্ব দেন। কাজ শুরুর পর সড়কে নিম্নমানের ইট, পরিমানের চেয়ে কম বালুর ব্যবহার কম ও মাটি কেটে বক্স না করে দায়সারা কাজ শুরু করে। একইভাবে সড়কের ভাঙ্গন ঠেকাতে তিনটি স্থানে গার্ডওয়াল নির্মাণের কথা থাকলেও তা করা হয়নি। পরে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী প্রতিবাদ শুরু করলে উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান সরেজমিন পরিদর্শন করেন। একপর্যায়ে প্রকল্প কর্মকর্তা সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারদের কাজ বন্ধের নির্দেশ দেন।

প্রকল্প কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান জানান, নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহারের সত্যতা পেয়ে কাজ বন্ধ করে দিয়েছি।

লেমুয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ উদ্দিন নাসিম জানান, এলাকাবাসী তাকে বিষয়টি জানিয়েছেন। তিনি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছেন।

ফেনী সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা নাসরিন সুলতানা জানান, নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করায় প্রকল্প কর্মকর্তার কাজ বন্ধ করার বিষয়টি তিনি জেনেছেন।









Leave a reply