স্বামীর চক্রান্তে গণধর্ষণের শিকার স্ত্রী

|

স্টাফ রিপোর্টার নেত্রকোণা

নেত্রকোণার কেন্দুয়ায় স্বামীর চক্রান্তে স্ত্রী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কেন্দুয়া-মদন সড়কের শাপলা ইটখলায় ঘটনাটি ঘটেছে।

গণধর্ষণের শিকার ওই নারীর বাবার বাড়ি-কেন্দুয়া উপজেলার মাসকা গ্রামে। তিনি ঢাকার গাজীপুরে একটি সোয়েটার কোম্পানিতে চাকুরি করেন। ঈদের ছুটিতে এখানে বেড়াতে এসেছিলেন তিনি।

কেন্দুয়া থানার ওসি মো. রাশেদুজ্জামান জানান, ভূক্তভোগী তার বাবার বাড়িতে বেড়াতে এসে কথিত স্বামী সুমনের সঙ্গে মোটরবাইকে করে ঘুরতে যায় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায়। পরে কেন্দুয়া-মদন সড়কের শাপলা ইটখলার পাশে যাবার পর মোটরবাইকটি নষ্ট হয়েছে বলে কৌশল করে বাইকটি থামিয়ে দেয়। এ সময় ইটখলা থেকে অপরিচিত তিন যুবক এসে তাকে জোড় করে ধরে নিয়ে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। ধর্ষকদের সঙ্গে কথিত স্বামী সুমনও পালিয়েছে।

ওসি আরও জানান, সোয়েটার কোম্পানিতে চাকুরি করতে গিয়ে সেখানে কর্মরত সুমন নামের এক বিবাহিত ছেলের সঙ্গে পরিচিত হয় ওই নারীর। পরে তারা পরকিয়া প্রেমে জড়িয়ে কয়েক মাস পূর্বে মৌলভির মাধ্যমে কলেমা পড়ে বিয়ে করেন। বিয়ে রেজিস্ট্রেশন ছাড়াই এ বিয়ে করলেও সুমনের প্রকৃত ঠিকানা জানেন না ঐ নারী। সে শুধু জানে সুমনের বাড়ি নেত্রকোণার মদন উপজেলার কোন একটি গ্রামে।

শুত্রবার সকালে ওসি জানান, রাতেই ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেছে পুলিশ। ধর্ষকদের পরিচয় চিহ্নিত করে পাকরাও করার চেষ্টা চলছে। এ ঘটনায় মামলা হবে। ভূক্তভোগীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নেত্রকোণা আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।









Leave a reply