পুলিশে চাকরি পেলো সরকারি শিশু পরিবারের তিন সদস্য

|

স্টাফ রিপোর্টার,নেত্রকোণা

নেত্রকোণা সরকারি শিশু পরিবারের তিন ছেলে এখন পুলিশ পরিবারের সদস্য। জেলার এতিমদের একমাত্র আশ্রয়স্থল সরকারি শিশু পরিবার। ১৯৭৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হওয়া সরকারি এই প্রতিষ্ঠানটির বয়স এখন ৪৬ বছর।

প্রতিষ্ঠাকাল থেকে শুরু করে প্রতিষ্ঠানে এই প্রথম তিনজন সদস্য সরকারি (পুলিশে) চাকরি পেলেন।

পুলিশে চাকরি হওয়ার খবরটি নিশ্চিত হওয়ার পর থেকে পুরো শিশু পরিবারে বইছে আনন্দের বন্যা।
নিজেদের যোগ্যতায় সম্পূর্ণ বিনে পয়সায় পুলিশের কনস্টেবল পদে চাকরি পাওয়া শিশু পরিবারের তিন সদস্য হলেন- মো. আব্দুল মান্নান, মো. সাদেকুল রহমান, মো. লিংকন মিয়া।

মান্নান নেত্রকোণার কেন্দুয়া উপজেলার ছবিলা গ্রামের মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে, সাদেকুল সদর উপজেলার পূর্ব মেদনী গ্রামের মৃত সাদেক মিয়ার ছেলে ও লিংকন আটপাড়া উপজেলার বাউসা গ্রামের মৃত আব্দুল আজিজের ছেলে।

সরকারি শিশু (বালক) পরিবারের উপ-তত্ত্বাবধায়ক তারেক হোসেন জানান, উৎকোচ ছাড়া শিশু পরিবারের তিন সদস্য চাকরি পাওয়াতে তারা খুব উপকৃত হয়েছেন।

ধসে যাওয়া তিনটি পরিবার আবার নতুনভাবে স্বপ্ন দেখতে পারবে। তাছাড়া শিশু পরিবারেরও সুনাম অর্জন হওয়ায় পুলিশ সদস্যদের নিয়ে তারা গর্ববোধ করছেন। স্বচ্ছতার নিয়োগের জন্য বাংলাদেশ পুলিশ তথা জেলা পুলিশ সুপারের প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন উপ-তত্ত্বাবধায়ক তারেক।

কনস্টেবল পদে নিয়োগ পাওয়া শিশু পরিবারের সদস্য লিংকন, মান্নান ও সাদেকুল জানান, চাকরি পেয়ে তারা খুব আনন্দিত। এরই মধ্যে পুরাতন দিনের সকল দুঃখ কষ্ট ভুলে
নতুন জীবনের স্বপ্ন বুনতে শুরু করেছে তারা।

এদিকে জেলা পুলিশ সুপার জয়দেব চৌধুরী জানান, শিশু পরিবারের তিন সদস্য নিজেদের মেধা যোগ্যতায় চাকরি পেয়েছেন।

শিশু পরিবারের সদস্য ছাড়াও বাকি ৭২ জনকে প্রতিবারের নিয়োগের মতো এবারও স্বচ্ছতার সাথে এই চাকরি দেয়া হয়।

এবারের নিয়োগে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় ১০, পুলিশ কোটায় ৩, নারী কোটায় ১৭ জন ও বিভিন্ন পর্যায় থেকে ৪৫ জনকে নেয়া হয়েছে।









Leave a reply