হেটমায়ারের বিশ্বরেকর্ড ভাঙলেন রোহিত, সামনে গাভাস্কার

|

টেস্ট ক্রিকেটে স্বদেশি লিজেন্ড সুনিল গাভাস্কারের পাশে দাঁড়াতে চলেছেন রোহিত শর্মা।

১৯৭১ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের ওপেনিংয়ে নেমে চার সেঞ্চুরি করে তাক লাগিয়ে ক্রিকেটবিশ্বে অভিষেক ঘটেছিল সুনিল গাভাস্কারের।

ওপেনার হিসেবে অভিষেক সিরিজে রোহিতও সেই পথেই এগোচ্ছেন। ইতিমধ্যে তিন সেঞ্চুরি জমা করেছেন ঝুলিতে।

সে হিসাবে সুনিল গাভাস্করের পরে তিনিই প্রথম ভারতীয় ওপেনার যিনি সিরিজে দুটির বেশি সেঞ্চুরি হাঁকালেন।

শনিবার রাঁচির জেএসসিএ স্টেডিয়ামে কাগিসো রাবাদা, লুঙ্গি এনগিদির কোনো চালই রোহিত শর্মাকে থামাতে পারেনি। দিনশেষে ১৬৪ বলে ১১৭ রান করে অপরাজিত থাকেন তিনি।

এত গেল স্বদেশী কিংবদন্তির সঙ্গে পাল্লা। তবে এদিন ওয়েস্ট ইন্ডিজের হার্ডহিটার ব্যাটসম্যান হেটমায়ারের বিশ্বরেকর্ডটি ভেঙে সেখানে নিজের নাম লেখালেন রোহিত।

এক টেস্ট সিরিজে সবচেয়ে বেশি ছয়ের মার মারলেন রোহিত। ২০১৮ সালে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজে ১৫টি ছয় মেরে বিশ্বরেকর্ড গড়েছিলেন হেটমায়ার।

শনিবার জেএসসিএ স্টেডিয়ামে হেটমায়ারের রেকর্ডকে চুরমার করে দিলেন রোহিত। সিরিজে এখন পর্যন্ত ১৭টি ছয় মেরেছেন রোহিত।

সেঞ্চুরিটাও হাঁকিয়েছেন ছয় মেরেই। অফস্পিনার ডেন পিয়েডকে লংঅফের ওপর দিয়ে শূন্যে ভাসিয়ে গ্যালারিতে পাঠান রোহিত।

ছক্কার বন্যায় ভাসিয়ে সেঞ্চুরি হাঁকানো রোহিত শর্মার এমন ইনিংসের প্রশংসা করলেন ভারতীয় দলের ব্যাটিং কোচ বিক্রম রাঠৌর।

সাংবাদ সম্মেলনে তিনি বললেন, আমি বিশ্বাস করি যেকোনো ফরম্যাটে বিশ্বসেরা ইনিংস খেলার ক্ষমতা রাখে রোহিত। সেটা যে কোনো পজিশনেই হোক। আর রোহিত নিজেকে সেভাবেই প্রমাণ করেছে, টেস্টে ওপেনিংয়ে নামালেও সে বিশ্বসেরাদের তালিকাতেই থাকবে।

শনিবার টসে জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় বিরাট কোহালি। কিন্তু বল হাতে রাবাদার ঝড়ো স্পেলে ১৫.৩ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে মাত্র ৩৯ রান করে ভারত।

রাবাদার ক্ষুরধার আউটসুইংয়ে স্লিপে ক্যাচ দিয়ে ১০ রানে ফেরেন মায়াঙ্ক আগরওয়াল, ইনসুইংয়ে পরাস্ত হয়ে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পরে শূন্যরানেই সাজঘরে ফেরেন চেতেশ্বর পূজারা।

এর পর চমক দেখান অ্যানরিখ নর্ৎজে। তার বলে এলবিডব্লিউ হয়ে ১২ রানে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন অধিনায়ক কোহালি।

কিন্তু এর পরই হাল ধরেন রোহিত শর্মা। ১৮৫ রানের অপরাজিত জুটি গড়ে দলকে ভালো জায়গায় পৌঁছে দেন রোহিত ও অজিঙ্ক রাহানে। রোহিতের সঙ্গে ৮৩ রানে ক্রিজে রয়েছেন ভারতের সহ-অধিনায়ক।

প্রথম দিনের শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে ভারতের রান ২২৪।









Leave a reply