শীতের শুষ্কতায় ত্বকের যত্ন

|

বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় শীতের এ সময়ে ত্বক হয়ে উঠে রুক্ষ। তাই এ ধরনের শুষ্ক ত্বকের ক্ষেত্রে লোশন খুব দ্রুত আপনার ত্বকের লাবণ্য ফিরিয়ে আনতে পারে। বডি লোশন কেনার আগে আপনার ত্বকের জন্য উপযুক্ত কিনা তা দেখে নিন। যাদের ত্বক তুলনামূলক কিছুটা বেশি রুক্ষ তারা লোশন ব্যবহারের আগে হাতে কিংবা পায়ে ভ্যাসলিন ব্যবহার করে তার সঙ্গে ব্যবহার করতে পারেন এই লোশন।

শীতের রুক্ষতা থেকে রেহাই পেতে আপনার ত্বকের বন্ধু হতে পারে অলিভ ওয়েল। অলিভ ওয়েল ত্বক সুস্থ রাখতে বেশ সহায়তা করে। এছাড়া শুষ্ক ত্বকের ক্ষেত্রে অলিভ ওয়েল বেশ উপকারী। রুক্ষ এই সময়ে গ্লিসারিন আপনার ত্বককে কোমল রাখতে বেশ সহায়ক হবে। তবে শুধু গ্লিসারিন ব্যবহার না করে তার সঙ্গে যুক্ত করতে পারেন অল্প পরিমাণের পানি আর লোশন। এই মিশ্রণটি শুষ্ক এবং তৈলাক্ত দুই ধরনের ত্বকে বেশ মানানসই। ত্বকের কালচে ভাব দূর করে ত্বক খুব দ্রুত লাবণ্যময় করে তুলতে পারে গ্লিসারিন। সেই ক্ষেত্রে গ্লিসারিন ব্যবহারের আগে ত্বক পরিষ্কার করে নিতে হবে যাতে ধুলাবালি থেকেও আপনার ত্বক থাকে সুরক্ষিত।

ত্বকের আলাদা আলাদা টোনের কারণে মুখের ত্বকে সব ধরনের উপাদান মানানসই হয় না। সেই ক্ষেত্রে ক্রিম আপনার ত্বককে রাখবে সুরক্ষিত। এতে করে শীতের এই সময়েও আপনার ত্বক থাকবে প্রাণবন্ত আর দীপ্তিময়।









Leave a reply