শ্রমিকের টাকা নিয়ে উধাও কারখানার তিন কর্মকর্তা: গ্রেফতার ১

|

মো. মোস্তাক আহমেদ, তাজুল ইসলাম ও মো. ওমর সাফাত আল জিহান

গাজীপুর প্রতিনিধি:

গাজীপুর সদর ভোগরা এলাকায় নিউয়েস্ট ফ্যাশনস লিমিটেড নামের একটি শিল্প প্রতিষ্ঠানের তিন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে টাকা হাতিয়ে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

এছাড়াও এদের বিরুদ্ধে গাজীপুর সদর ও বাসন থানায় জিডি (সাধারণ ডায়েরি) ও অভিযোগ রয়েছে। বিগত কয়েক বছর যাবৎ তারা গাজীপুরসহ দেশের বিভিন্ন শিল্প এলাকায় নিজের পরিচয় গোপন রেখে চাকরি করে আসছে।

একাধিক শিল্প কারখানায় ১/২ বছর কর্মরত থেকে মোটা অঙ্কের টাকা ও প্রতিষ্ঠানের গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র নিয়ে পালিয়ে যায় তারা। এনিয়ে তাদের নামে বিভিন্ন জেলায় ও থানায় মামলা দায়ের করা হলেও প্রশাসনের হাত থেকে পালিয়ে বেড়াচ্ছে ঐ তিন ব্যক্তি।

নিউয়েস্ট ফ্যাশনস লিমিটেড পোশাক কারখানায় কর্মরত ওই তিন কর্মকর্তা হলো- সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ডাইরেক্টর তাজুল ইসলাম (৪৫), কমার্শিয়াল ম্যানেজার মো. মোস্তাক আহমেদ (৫০) ও সহকারী কমার্শিয়াল ম্যানেজার মো. ওমর সাফাত আল জিহান (২৮)। এদের মধ্যে তাজুল ইসলাম নামের একজনকে আজ বাসন থানা পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

গত তিন বছর যাবৎ গাজীপুর সদর ভোগরা এলাকায় নিউয়েস্ট ফ্যাশনস লিমিটেড নামে পোশাক কারখানায় তারা কাজ করে আসছিলো। জুন মাসের ১৭ তারিখে সন্ধার দিকে কারখানার শ্রমিকদের বেতনের ৮০ লক্ষ টাকা, আসবাবপত্র, ল্যাপটপ, কম্পিউটারের হার্ডডিস্ক, এসআইবিএল ব্যাংকের স্বাক্ষরহীন ২টি চেকের পাতা নিয়ে পালিয়ে যায় তারা। এছাড়াও সাথে নগদ টাকা নিয়ে যায়।

পরে খোঁজাখুঁজি করে তাদের না পেয়ে শেখ মোহাম্মদ মহসিন উদ্দিন রনি বাদি হয়ে গাজীপুর মেট্রোপলিটন বাসন থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এদিকে, গত তিন বছর আগে গাজীপুর সদর ভোগড়া চৌধুরীবাড়ী এলাকায় স্টাইলিশ গার্মেন্টস ফ্যাক্টরী লিঃ এর শ্রমিকদের বেতনের টাকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার অপরাধে মো. সালাউদ্দিন চৌধুরী বাদি হয়ে গাজীপুর সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন এ তিন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে। তারা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন পোশাক কারখানায় তাদের স্থায়ী ঠিকানা ও নাম পরিচয় গোপন রেখে এ কর্মকাণ্ড করে যাচ্ছে।









Leave a reply