কারসাজির বৃত্ত থেকে বের হতে পারছে না পুঁজিবাজার

|

গতিশীলতা ফিরলেও কারসাজির বৃত্ত থেকে বের হতে পারছে না পুঁজিবাজার। মুষ্টিমেয় কিছু কোম্পানিকে ঘিরেই চলছে বাজারের উত্থান পতন। এ কারণে সর্বশান্ত হচ্ছে অনেক সাধারণ বিনিয়োগকারী। বিশ্লেষকরা বলছেন, ভালো মানের শেয়ার না থাকার সুযোগ নিচ্ছে চক্রটি। তবে, বিএসইসি চেয়ারম্যান শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম বলেছেন, বাজার নিয়ে কেউ কারসাজি করলেই ব্যবস্থা নেবে নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

পুঁজিবাজারে গেল কয়েক মাস ধরেই উর্দ্ধমুখী বীমা খাতের শেয়ারের দর। দীর্ঘদিন তলানিতে থাকার পর দর বেড়েছে ৩ থেকে ৪ গুণ। যদিও মন্দা অর্থনীতিতে বীমা খাতের চাঙ্গাভাব নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। ফার্মাসিটিক্যাল, টেলিকমিউনিকেশন এবং আর্থিক খাতের দু’একটি কোম্পানিও আছে দাম বৃদ্ধির দৌড়ে । মূলত এসব কোম্পানিকে ঘিরেই নির্ধারিত হচ্ছে সাধারণ মূল্যসূচকের গতি ও লেনদেনের পরিমাণ।

বাজার সংশ্লিষ্টরাও বলছেন, গতিশীলতা ফিরলেও স্থিতিশীলতা ফিরে আসেনি। যে কারণে বাড়ছে গুজব নির্ভর কোম্পানির শেয়ারের দর। এটি নিয়ন্ত্রণে ভালো কোম্পানির শেয়ারের যোগান বাড়াতে হবে।

স্থিতিশীল পুঁজিবাজার গড়ে তুলতে সব ধরনের উদ্যোগ নেয়ার আশ্বাস দিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি। কেউ কারসাজির চেষ্টা করলেই নেয়া হবে ব্যবস্থা। কারসাজির মাধ্যমে কাউকে কোন প্রতিষ্ঠানের দাম বাড়ানো বা কমানোর সুযোগ দেয়া হবে না বলেও আশ্বাস দেন বিএসইসি চেয়ারম্যান শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম।









Leave a reply