হাত কেটে গৃহবধূর আত্মহত্যা চেষ্টা, ৯৯৯ কল করে জীবন রক্ষা

|

গাইবান্ধা প্রতিনিধি:

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরে ব্লেড দিয়ে হাত কেটে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন ফউজিয়া আকতার রিয়া (২০) নামে এক গৃহবধূ। যৌতুকের দাবিতে আটক রেখে স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজনের নির্যাতন সইতে না পেরে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন বলে অভিযোগ তার।

পরে জাতীয় জরুরী সেবার হটলাইন ৯৯৯ নম্বরে ফোন করলে পুলিশ গিয়ে অসুস্থ অবস্থায় গৃহবধূকে উদ্ধার করে। বর্তমানে ফউজিয়া আকতার সাদুল্লাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

হাসপাতালে ভর্তির পর ফউজিয়ার কেটে যাওয়া হাত সেলাই করাসহ প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সেবা দেয়ার কথা জানিয়েছেন জরুরী বিভাগের দায়িত্বরত চিকিৎসক মিনা আকতার। বর্তমানে তার শারীরিক অবস্থা ভালো আছে বলেও জানান তিনি।

ফউজিয়া আকতারের মামা আব্দুর রাজ্জাকের অভিযোগ, গত বছরের ৬ মার্চ পারিবারিকভাবে আরিফুল ইসলামের সাথে ফউজিয়া আকতারের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে যৌতুক দাবি করাসহ বিভিন্ন কারণে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে দ্বন্দ্ব চলে আসছিলো। এ নিয়ে ফউজিয়াকে প্রায়ই মারধরসহ নির্যাতন করতো স্বামী আরিফুল ও তার বাবা-মাসহ পরিবারের লোকজন।

তবে অভিযোগের বিষয়ে বক্তব্য জানতে স্বামী আরিফুলসহ তার বাবা সিরাজুল ইসলামের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তদের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে সাদুল্লাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাসুদ রানা জানান, ৯৯৯ নম্বরে কল পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। পরে অসুস্থ অবস্থায় গৃহবধূকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে রাত ১১টা পর্যন্ত লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগে পেলে নির্যাতনের ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে মামলাসহ তাদের গ্রেফতার করা হবে’।









Leave a reply