ভালোবাসার ছয় আলিঙ্গন

|

আলিঙ্গন এমন কী কঠিন কাজ। কে না দিতে পারে? উঁ হু, সবাই পারে না, সব সময় পারে না। আলিঙ্গনের যে কত রকম ফের আছে তা কি জানেন? সময়, পরিস্থিতি, রুচি, এবং ব্যক্তিভেদে একটি সঠিক আলিঙ্গন আপনাকে দিতে পারে চনমনে উষ্ণ অনুভূতি। অন্যথা হলে পড়তে পারেন খুবই বিব্রতকর পরিস্থিতিতে। আলিঙ্গন দিতে না পারার মতো বিব্রতকর পরিস্থিতি নিশ্চয় পড়তে চাইবেন না!

ভালোবাসা দিবসের আগে দ্বিতীয় শেষ দিন সোমবার। এই দিনটিকে বলা হয়ে থাকে আলিঙ্গন দিবস বা হাগ ডে। ভালোবাসা সপ্তাহ বা ভ্যালেন্টাইন উইকের (ভালোবাসা দিবসসহ) জন্য মুখিয়ে থাকেন, তারা তৈরি হয়ে যান ভালোবাসা পূর্ণ আলিঙ্গনের জন্য।

ওহ, আসলে কথা বলে নেই, প্রতিটি আলিঙ্গনের ভাষা, সুর, এবং কথপোকথনের অর্থ কিন্তু আলাদা। দেখবেন, ভাবছেন এক রকম আর আলিঙ্গন দিচ্ছেন অন্য রকম, তবে কিন্তু আর রক্ষে নেই। সব সময় উঁকি দেওয়া এই ঝুঁকি থেকে বাঁচতে নিচে দেওয়া হয়েছে, ছ’ ছ’টি আলিঙ্গনের রকম ফের দেওয়া হয়েছে।

পড়ুন, এবং বুঝে বেছে নিন আপনারটি; হ্যাপি হাগ ডে, ওপস শুভ আলিঙ্গন দিবস …………..

জাপটে ধরে আলিঙ্গন

বিয়ার হাগ বা জাপটে ধরে আলিঙ্গনটি সব ধরনের ভালোবাসার সম্পর্কের জন্য প্রযোজ্য। দৃঢ় এই আলিঙ্গনটি বলে দেবে সম্পর্কের দৃঢ়তার লাখ লাখ কথা। বিশেষত মা-বাবার কাছ পাওয়া এ ধরনের আলিঙ্গন আপনার মানসিক চাপ ও দুশ্চিন্ত কমিয়ে দেবে।

 

ভদ্রোচিত আলিঙ্গন

পরিচিত কিংবা সহকর্মীদের ক্ষেত্রে এ ধরনের আলিঙ্গন দেওয়া হয়ে থাকে। এমনকি বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের ক্ষেত্রেও এ আলিঙ্গন দেওয়া যায়। ভদ্রোচিত আলিঙ্গন পাশাপাশি অবস্থানে শুধুমাত্র শরীরের ওপরের অর্ধাংশের স্পর্শ ঘটে।

এক পাক্ষিক আলিঙ্গন

 

আপনি কাউকে জড়িয়ে ধরেছেন, কিন্তু অপরজনকে আপনাকে জড়িয়ে ধরেনি, একে এক পাক্ষিক আলিঙ্গন বলা হয়ে থাকে।  অপরজনের কাছ থেকে এমন প্রত্যত্তুরের অর্থ হচ্ছে আপনার মতো সম্পর্কটিকে তিনি অত গভীরভাবে দেখছেন না।

অন্তরঙ্গ আলিঙ্গন

একে অন্যের চোখের দিকে তাকিংয়ে অঙ্গাঅঙ্গিভাবে জড়িয়ে ধরাই অন্তরঙ্গ আলিঙ্গন। চার চোখের মিলন এ আলিঙ্গনের সবচেয়ে প্রেমময় আমেজটি তৈরি করে। এ ধরনের কোনো আলিঙ্গন পেয়ে থাকলে বুঝবেন…………… কি বুঝবেন। এখনও বুঝলেন না, আরে আপনার জন্য হৃদয়ের গভীরে বিশেষ ভালো লাগা রয়েছে।

বন্ধুত্বপূর্ণ আলিঙ্গন

পাশাপাশি থেকে এক হাত দিয়ে একে অপরকে জড়িয়ে বা বিশেষত, কাঁধে হাত রেখে এ আলিঙ্গন করা হয়। এটি আস্থা, বিশ্বাস ও আরামদায়ক সম্পর্ককে নির্দেশ করে। এর মানে, আপনি শুধু ভালো লাগা বা ভালোবাসার মানুষ নন, একজন ভালো বন্ধুও। চলতে ফিরতে যদি এ ধরনে আলিঙ্গন পেয়ে থাকেন তবে ধরে নিতে পারেন আপনার সম্পর্ক অনেক দিন টিকবে।

আবেগঘন আলিঙ্গন

এটিকে আরেক ধরনের অন্তরঙ্গ আলিঙ্গনও বলা যেতে পারে। এটি বিশ্বাস ও নিরাপত্তার প্রতীক। শিশুরা সাধারণত পেছন দিক থেকে মা-বাবাকে জড়িয়ে ধরে, মা-বাবা সন্তানকে ঘুরিয়ে এসে বুকে জড়িয়ে নেঅ। তবে আবেগঘন আলিঙ্গন ভালোবাসার মানুষটির জন্যও কম নয়। এ ধরনের আলিঙ্গন পেয়ে থাকলে বুঝছেন সে আছে আপনার জন্য ঢাল হয়ে সব সময়। বিশ্বাস হচ্ছে না? তবে নিশ্চয় টাইটানিক সিনেমাটি দেখেছেন? আচ্ছা দেখেছেন কিংবা নাই বা দেখেছেন, পেছন থেকে জড়িয়ে ধরা আবেগঘন আলিঙ্গনের রোমান্টিকতা একটু ঝালিয়ে নিতে না হয় আরও একবার দেখলেন।

যমুনা অনলাইন: এফএইচ









Leave a reply