চালের ড্রাম থেকে আমিন জুয়েলার্সের ২১৭ ভরি স্বর্ণ উদ্ধার!

|

চালের ড্রাম থেকেই কিনা উদ্ধার করা হয়েছে আমিন জুয়েলার্সের চুরি হওয়া ২১৭ ভরি স্বর্ণ। সাথে ছিল নগদ ১১ লাখ টাকাও। উন্নত তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে গুলশান থানা পুলিশ চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ থেকে চুরি হওয়া স্বর্ণ ও টাকা উদ্ধার করে। এ ঘটনায় সাদ্দাম হোসেন নামে চোর চক্রের এক সদস্যের বাবাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।

অভিযুক্ত সাদ্দাম হোসেন (৩০) উপজেলার পশ্চিম বড়ালী গ্রামের আমিন উল্ল্যাহর ছেলে ও পেশায় নির্মাণ শ্রমিক।

মঙ্গলবার ফরিদগঞ্জ থানা পুলিশের সহযোগিতায় পশ্চিম বড়ালী গ্রামের দিঘীর পাড়ের রাজামান পাটোয়ারী বাড়ি থেকে স্বর্ণ ও টাকা উদ্ধার করা হয়।

এর আগে সোমবার মোবাইল ফোন ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে চোর চক্রের সদস্য সাদ্দাম হোসেনকে (২২) টার্গেট করে গুলশান থানা পুলিশ।

গুলশান থানার পরিদর্শক (অপারেশন) আমিনুল ইসলাম জানান, ওই বাড়িটি চোর চক্রের অন্যতম সদস্য সাদ্দাম হোসেনের নানার বাড়ি। সেখান থেকেই এসব স্বর্ণ ও টাকা উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার হওয়া স্বর্ণের পরিমাণ ২১৭ ভরি ও নগদ টাকা ১১ লাখ ২৪ হাজার।

তিনি বলেন, অভিযুক্ত সাদ্দামকে না পেলেও তার বাবা আমিন উল্ল্যাহকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ঢাকায় নিয়ে আসা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, অভিযুক্ত সাদ্দাম হোসেন গত রোববার ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়িতে আসে এবং তার নানার বাড়িতে অবস্থান নেয়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সে পালিয়ে যায়। নানার বাড়িতে বৃদ্ধ নানা-নানী থাকেন।

প্রসঙ্গত, গত শনিবার রাতে থেকে রোববারে মধ্যে গুলশানে আমিন জুয়েলার্সের ছাদ কেটে একদল চোর বিপুল পরিমাণ স্বর্ণ ও টাকা লুট করে। ওই ঘটনায় থানায় মামলা হলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ ফরিদগঞ্জের ওই বাড়িতে অভিযান চালায়।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply