বিশ্বকাপের পর অবসরের কথা ভাবছেন ক্ষুব্ধ সালাহ!

|

বলতে গেলে সবেমাত্র শুরু। আর এখনই কিনা অবসররের কথা ভাবতে হচ্ছে মিশরীয় ফুটবল সেনসেশন মোহাম্মদ সালাহকে! শুনতে ‘গুজব’ এর মতো মনে হলেও বাস্তবে এমনটিই ভাবছেন লিভারপুল তারকা। বার্তা সংস্থা এপি তার ঘনিষ্ঠ দুই টিমমেটের বরাতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

বিশ্বকাপের পরপরই মিশরীয় দল থেকে অবসর নেয়ার চিন্তা করছেন তিনি।

সমস্যার শুরু রাশিয়াতে পৌঁছার পর। চেচনিয়ার একটি স্টেডিয়ামে নিজেদের খেলার আগে অনুশীলন ছিল মিশরীয় টিমের। আর চেচনিয়ার শাসক হলেন রমজান কাদিরভ, যাকে একনায়ক হিসেবে চিহ্নিত করে পশ্চিমা মিডিয়া। মানবাধিকার লঙ্ঘন, বিরোধী রাজনৈতিক পক্ষে ওপর নিপীড়ন ইত্যাদি কারণে বেশ সমালোচিত রমজান তার এলাকায় সালাহদের আগমনের খবর শুনে স্টেডিয়ামে চলে যান।

সেখানে গিয়ে বিশেষ করে সালাহকে নিয়ে পুরো স্টেডিয়াম এলাকা ঘুরে বেড়ান। গ্রজনির ওই স্টেডিয়ামটি রমজানের বাবার নামে। দুইদিন পরে সালাহদের সম্মানে ডিনারের আয়োজন করেন চেচেন শাসক। সেখানে মিশরীয় তারকার জন্য ‘সম্মানসূচক নাগরিকত্ব’ও প্রদান করেন তিনি।

সালাহকে ঘিরে রমজানের এই আগ্রহকে ‘রাজনীতি’ হিসেবে দেখছে ব্রিটিশ মিডিয়া। এমন আমন্ত্রণে সাড়া দেয়ায় আঙ্গুল তোলা হয়েছে সালাহর দিকেও। তাকে নিয়ে এই টানাটানিতে বেশ বিরক্ত ও ক্ষুব্ধ ইংলিশ লিগের সর্বশেষ মওসুমের সেরা এই খেলোয়াড়। এর জেরেই মূলত জাতীয় দল থেকে অবসরের চিন্তা।









Leave a reply