ফাইনালে মাঠে ঢুকায় সেই প্রতিবাদী চার কর্মীর জেল

|

রাশিয়া বিশ্বকাপের ফাইনালে নিরাপত্তা বেষ্টনী ভেঙ্গে মাঠে প্রবেশ করায় চার জন পুসি রায়ট কর্মীকে জেল দিয়েছে মস্কোর আদালত। তাদের প্রত্যেককে ১৫ দিনের জেল এবং আগামী তিন বছরের জন্য যে কোনো ক্রীড়া অনুষ্ঠান থেকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

কারাদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- ভেরোনিকা নিরুলশিনা, ওলগা কুরাচেভা, পিওতর ভের্জিলভক এবং ওলগা পাখতুসোভা। এদের মধ্যে ভের্জিলভক মিডিয়াজোনা ওয়েবসাইটের প্রতিষ্ঠাতা। এতে মানবাধিকার আন্দোলনের বিচার নিয়ে খবর প্রকাশ করে।

তাদের বিরুদ্ধে দর্শকদের আচরণের নিয়মবিধি ভাঙ্গার অভিযোগ আনা হয়েছে এবং এ আইনের অধীনে সর্বোচ্চ শাস্তি দেয়া হয়েছে।

পুসি রায়ট রাশিয়ার নারীবাদী পাঙ্ক রক ব্যান্ড। ২০১২ সালে এর সদস্যরা পুতিন বিরোধী গান প্রচার করে।

ফ্রান্স ও ক্রোয়েশিয়ার মধ্যকার ফাইনাল খেলার দ্বিতীয়ার্ধে পুলিশের পুরাতন ইউনিফর্ম পরে মাঠে ঢুকে যায় ওই চার পুসি রায়ট কর্মী। এসময় কিছুক্ষণ খেলা বন্ধ থাকে। রায়ট কর্মীদের একজন ফরাসি খেলোয়াড় কিলিয়ান এমবাপ্পের সঙ্গে হাত মেলায়। এ ঘটনায় সময় মাঠের ভিআইপি বক্সে বসে খেলা দেখছিলেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রো, ক্রোয়েশিয়ার প্রেসিডেন্ট কলিন্দা গ্রাবার কিতোরোভিচ, ফিফার সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো।

চার কর্মীকে আটকের পর পুসি রায়ট এক টুইটার বার্তায় জানায়, সব রাজনৈতিক বন্দির মুক্তি এবং দেশে অবাধ রাজনীতি করার সুযোগ দেয়ার দাবিতে তাদের এই বিক্ষোভ।









Leave a reply