পাওলো দিবালার হ্যাটট্রিকে জয় পেলো য়্যুভেন্টাস

|

অঘটনের রাতে সিএসকে মস্কোর কাছে ১-০ গোলে হেরেছে স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ। হোচোট খেয়েছে আরো দুই জায়ান্ট বায়ার্ন মিউনিখ ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। আয়াক্সের বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র করেছে জার্মান ক্লাব বায়ার্ন মিউনিখ। আর ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে গোল শুন্য রুখে দিয়েছে ভ্যালেন্সিয়া। তবে পাওলো দিবালার হ্যাটট্রিকে ইয়াং বয়েজের বিপক্ষে ৩-০ গোলের জয় পেয়েছে ইতালিয়ান ক্লাব য়্যুভেন্টাস।

লুঝনিকি স্টেডিয়ামে গ্রুপ জি’র ম্যাচে সিএসকে মস্কোর আতিথ্য নেয় রিয়াল মাদ্রিদ। তবে চোটের কারণে দলে ছিলেন না বেল, রামোস, মার্সেলো, ইসকোরা। তাই মস্কোয় দিনটা ভালো যায়নি গ্যালাকটিকোদের। ম্যাচের ৮ মিনিটে নিকোলা ভ্লাসিচের গোলে লিড নেয় স্বাগতিকরা সিএসকে মস্কো। তবে ম্যাচে ২৮ মিনিটে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ ছিল রিয়ালের। ক্যাসেমিরোর শট গোল বারে লাগলে ভাগ্যের শিকে ছেড়া হয়নি লোপেত্তেগুই শীর্ষদের। এই হারে সব ধরনের প্রতিযোগীতায় টানা ৩ ম্যাচে জয়ের দেখা পায়নি রিয়াল মাদ্রিদ।

এদিকে ঘরের মাঠে ভ্যালেন্সিয়ার বিপক্ষে হোচট খেয়েছে ইংলিশ জায়ান্ট ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ওর্ল্ড ট্রাফোডে গ্রুপ এইচ’র ম্যাচে নিজেদের শতভাগ মেলে ধরতে পারেননি লুকাকু-সানচেজরা। উল্টো স্বাগতিক ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের রোক্ষণকে কঠিন পরীক্ষা নেয় ভ্যালেন্সিয়া। প্রথমার্ধে কোন সুযোগ করতে পারেনি দু দল। তবে দ্বিতীয়ার্ধের ১৬ মিনিটে পল পগবার শট ঠেকিয়ে দেন প্রতিপক্ষ গোল রক্ষক। আর শেষ দিকে রাশফোর্ডের শট ক্রস বারে লাগলে পয়েন্ট ভাগ করে মাঠ ছাড়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

দুঃস্বপ্নের মত শুরু করেও নাটকীয় ম্যাচের শেষ হাসি হেসেছে ম্যানচেস্টার সিটি। বিপরীতে ঘরের মাঠে শুরুটা স্বাপ্নের মত হফেনহাইমের। ম্যাচের ৪৪ সেকেন্ডে আলজেরিয়ান ফরোয়ার্ড ইসাক বেরফেদির গোলে লিড নেয়া স্বাগতিকরা। তবে সমতা ফিরতে সময় নেয়নি সিটিজেনরা। ৮ মিনিটে ডেভিড সিলভার অ্যাসিস্ট থেকে দলকে সমতা ফেরার সিটি ফরোয়ার্ড সার্জিও অ্যাগুয়েরো। দ্বিতীয়ার্ধেও আক্রমণের পশরা সাজালেও সিটির জয় সূচক গোল আসে ম্যাচের ৮৭ মিনিটে। অস্ট্রিয়ান ডিফেন্ডার স্টেফানের ভুলের সুযোগ নিয়ে দলকে পূর্ণ ৩ পয়েন্ট এনে দেন ডেভিড সিলভা।

জার্মান লিগের পর এবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও ছন্দহীন বায়ার্ন মিউনিখ। তবে ঘরের মাঠে আয়াক্সের বিপক্ষে ম্যাচের ৪ মিনিটে এগিয়ে যায় বাভারিয়ানরা। আরিয়ান রোবেনের অ্যাসিস্ট থেকে স্বাগতিক দর্শকদের উপলক্ষ এনে দেন মাটস হুমেল। তবে বেশিক্ষণ লিড ধরে রাখতে পারেনি বায়ার্ন। ম্যাচের ২২ মিনিটে মরক্কোর ডিফেন্ডার মাজরাউইয়ের শট ঠেকাতে ব্যর্থ হন ম্যানুয়েল নয়ার। ১-১ গোলে সমতা ফেরে আয়াক্স। শেষ দিকে বায়ার্ন রোক্ষণে জেকে বসে অতিথিরা। তবে আর কোন হোল না হলে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে মাঠ ছাড়ে দু দল।

গ্রুপ এফ’র ম্যাচে ইয়াং বয়েজের বিপক্ষে ক্রিশ্চিয়ানো রোনারদোকে ছাড়াই মাঠে নামে য়্যুভেন্টাস। তবে সাফল্য পেতে দেরি হয়নি ইতালিয়ান জায়ান্টদের। ম্যাচের ৫ মিনিটে লিওনার্দো বেনুচ্চির অ্যাসিস্ট থেকে লিড এনেদেন য়্যুভেন্টাসের আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড পাওলো দিবালা। ৩৩ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন দিবালা। আর ম্যাচের ৬৯ মিনিটে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে চতুর্থ আর্জেন্টাইন হিসেবে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন আর্জেন্টাইন এই ফরোয়ার্ড।









Leave a reply