পাঁচ দেশের মর্জিতে সবার কেন চলতে হবে, এরদোগানের প্রশ্ন

|

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী পাঁচ সদস্য রাষ্ট্রের সমালোচনা করে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান বলেছেন, গোটা বিশ্ব এ পাঁচ দেশ থেকে অনেক বড়। এই পাঁচ দেশের মর্জিতেই বিশ্ববাসীর চলতে হবে কেন?

বুধবার (২২ মে) আঙ্কারায় বিচার বিভাগের সদস্য ও প্রসিকিউটরদের এক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। খবর ডেইলি সাবাহর।

এ সময় ‘বিগ ফাইভ’তথা যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, রাশিয়া, চীন ও ফ্রান্সের সমালোচনা করে তিনি বলেন, গোটা বিশ্ব এই পাঁচটি দেশের চেয়েও বড়।

এরদোগান উল্লেখ করেন যে, তিনি প্রতিটি আন্তর্জাতিক সেমিনারে এ কথা বারবার বলেন, পাঁচটি দেশের চেয়ে গোটা বিশ্ব অনেক বড়। আর এটা ইনসাফপূর্ণ বিচার কামনা করার একটা পদ্ধতি মাত্র। তিনি বলেন, আমরা সবসময় বিশ্বের নিপীড়িত মানুষের পক্ষে এবং পৃথিবীর অত্যাচারী শক্তি, অধিকাংশ সময় যারা জুলুম ও অত্যাচারের কারণ হয় তাদের বিপক্ষে কথা বলছি।

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের সক্ষমতার বিষয়ে প্রশ্ন তুলে এরদোগান বলেন, আরাকান, লিবিয়া, ফিলিস্তিনে কি তারা কোনো ন্যায়বিচার করতে পেরেছে? অথচ বিশ্বজুড়ে তারা ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার ছবক দেয়, এভাবে মানবতার বুলি আওড়িয়ে মানবতার সঙ্গে প্রতারণা করা হয়েছে।

গত ১৭ বছরে তুরস্কের বিচারব্যবস্থার যথেষ্ট উন্নতি হয়েছে বলে জানান প্রেসিডেন্ট এরদোগান।

তিনি বলেন, তুরস্ক একটি স্বাধীন দেশ। আমরা ন্যায়বিচারের শাসনে বিশ্বাসী। কোনো বিচারক, রাজনীতিক- এমনকি আমার দলের কেউ-ই ন্যায়বিচারের ঊর্ধ্বে নয়।









Leave a reply