আসামিরা শ্বশুরকে চাপে ফেলে মনগড়া কথা বলাচ্ছে: মিন্নি

|

বরগুনায় নিহত রিফাত শরীফের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি বলেছেন, আসামিরা তার শ্বশুরকে চাপে ফেলে মনগড়া কথা বলাচ্ছেন। বিচারকে অন্যদিকে প্রবাহিত করার জন্য তারা এমন চেষ্টা করছেন বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

আজ নিজ বাড়িতে এক সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেন মিন্নি।

এর আগে, গতকাল মিন্নির শ্বশুর দুলাল শরীফ তার ছেলে রিফাত শরীফ হত্যার সাথে মিন্নি জড়িত বলে বক্তব্য দেন। একই সাথে মিন্নিকে আটক করারও দাবি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগের বিষয়ে মিন্নি বলেন, আমার স্বামীকে হত্যার ভিডিওতে দেখা যায়, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অস্ত্রের মুখে প্রতিবাদ করেছি স্বামীকে বাঁচানোর জন্য। সেই ভিডিও দেখে সারাদেশের মানুষ আমার সাহসের প্রশংসা করেছেন। পরবর্তীতে আমার শ্বশুর নয়ন বন্ডসহ মোট ১২ জরকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। কিন্তু সেই মামলার এজহারের কোথাও আমার নাম উল্লেখ করেন নি। বরং আমি ওই মামলার ১ নং স্বাক্ষী। বর্তমানে আমার শ্বশুর অসুস্থ এবং একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে তিনি আরো অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। যখন যা বলেন তা কোন কিছুই পরে মনে রাখতে পারেন না।

মিন্নি আরো বলেন, প্রধান আসামি নয়ন বন্ড এলাকার মাদকসেবী ও মাদক ব্যবসাসহ অনেক খারাপ কাজের সাথে জড়িত। বিভিন্ন অপকর্মে জড়িত থাকায় তার নামে অনেক মামলা রয়েছে। ০০৭ নামের যে গ্রুপটি বরগুনায় যারা সৃষ্টি করেছেন তারা খুবই ক্ষমতাবান ও অর্থশালী। তারা এ বিচারকে অন্যদিকে প্রবাহিত করার জন্য গতকাল আমার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করিয়েছে। তারা যে অভিযোগগুলো করেছে সেগুলো সম্পূর্ণ মনগড়া ও বানোয়াট। আমার শ্বশুরের সকল বক্তব্যের আমি তীব্র নিন্দা জানাই।

সংবাদ সম্মেলনে নিরাপত্তা দেয়ার জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীসহ পুলিশ সুপারকে ধন্যবাদ জানায় মিন্নি। সেই সাথে তিনি প্রধানমন্ত্রীর কাছে দাবি জানান, তার বিরুদ্ধে যারা মিথ্যাচার করছে যাতে তাদেরও বিচারের আওতায় আনা হয়।









Leave a reply