ছেলেধরা সন্দেহে নারীকে গাছের সাথে বেঁধে নির্যাতন

|

স্টাফ রিপোর্টার, মাদারীপুর
মাদারীপুরে ছেলেধরা সন্দেহে এক মানসিক ভারসাম্যহীন নারীকে গাছের সাথে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরে সদর থানা পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মাদারীপুর সদর উপজেলার ধুরাইল ইউনিয়নের বৈরাগীর বাজারে সোমবার দুপুরে এক নারীকে যেখানে সেখানে ঘুরতে দেখে বাজারের লোকজন। স্থানীয়রা তার নাম পরিচয় জানতে চাইলে সে কোন জবাব না দেওয়ায় এ সময় গলাকাটা (ছেলেধরা) সন্দেহে তাকে আটক করে স্থানীয়রা। পরে একটি গাছের সাথে বেঁধে শারিরীকভাবে নির্যাতন করা হয়। পরে সদর থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে ওই নারীকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে।

পরে ওই নারীর কথা-বার্তা অসঙ্গতিপূণ ও এলোমেলো হওয়ায় পুলিশ তাকে ছেড়ে দেয়। স্থানীয় একাধিক ব্যক্তি জানান, ওই নারী কিছুটা মানসিক ভারসাম্যহীন। তাই তাকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। তবে ওই নারীর কোনো পরিচয় পাওয়া যায়নি।

এ ব্যাপারে মাদারীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বদরুল আলম মোল্লৃা বলেন, ‘ছেলেধরা সন্দেহে এক নারী আটক হয়েছে এমন খবর পেয়ে পুলিশ ওই নারীকে উদ্ধার করেছে। ওই নারী মূলত মানসিক ভারসাম্যহীন। তাই তাকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। আগামীতে যাতে কেউ ছেলেধরা সন্দেহে নির্যাতন করতে না পারে সে বিষয়ে আমাদের মনিটরিং জোরদার করা হয়েছে।’









Leave a reply