পুড়ছে আমাজন, বৃষ্টির দিকে তাকিয়ে ব্রাজিল

|

আমাজন বনাঞ্চলে ছড়িয়ে পড়া আগুন দ্রুতই নেভার সম্ভাবনা দেখছেন না বিশেষজ্ঞরা।

ফায়ার সার্ভিস, সেনাবাহিনীর তৎপরতায় আগুনের ভয়াবহতা কিছুটা কমানো গেলেও ভারি বৃষ্টিপাতের আগ পর্যন্ত আগুন পুরোপুরি নিভবে না বলে জানিয়েছেন ব্রাজিলের প্রকৃতি বিশেষজ্ঞরা।

আবহাওয়া পূর্বাভাস বলছে, আগামী সেপ্টেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহের আগে ভারি বৃষ্টিপাতের তেমন সম্ভাবনা নেই। এদিকে আমাজন বনকে বাঁচাতে জি-সেভেন জোটের ঘোষণা করা প্রায় দুই কোটি ডলারের তহবিল প্রত্যাখ্যান করেছে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট অফিস।

উন্নত দেশগুলোর জোট জি-সেভেনের তহবিল না নেয়ার ইঙ্গিত দিলেও জোটভুক্ত দেশ ছাড়াও ইউরোপের দেশগুলোতে অবস্থান করা ব্রাজিলের রাষ্ট্রদূতদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে।

দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গত সোমবার এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা জারি করে। আমাজনের আগুন নেভাতে ব্রাজিল সরকারের কার্যক্রম সম্পর্কে সবাইকে জানাতে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

এদিকে আমাজনের বলিভিয়া ও প্যারাগুয়ে অঞ্চলেও আগুন ছড়িয়ে পড়েছে। আগুন ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে কার্যকর ব্যবস্থা না নেয়ায় পরিবেশবাদীদের ক্ষোভের মুখে পড়েছেন বলিভিয়ার প্রেসিডেন্ট ইভো মোরালেস।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে মঙ্গলবার বলা হয়েছে, বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, আমাজনের আগুন নেভাতে ফায়ার সার্ভিসের পাশাপাশি সেনা সদস্যদের নামানো, যুদ্ধবিমান দিয়ে পানি ছিটানোর কার্যক্রম স্বল্পমাত্রায় উপযোগী হবে। ব্রাজিল সরকারের এই কার্যক্রমে অল্প আগুন নেভানো ও আগুন ছড়িয়ে পড়া কিছুটা ঠেকানো গেলেও সার্বিকভাবে ততটা কার্যকর হবে না। এক্ষেত্রে বৃষ্টিই ‘একমাত্র ভরসা’ বলে উল্লেখ করেছেন তারা।

অল্প বৃষ্টিতে আগুন কিছুটা দমলেও পুরোপুরি নিভতে একটানা ভারি বৃষ্টির প্রয়োজন হবে। দেশটির আবহাওয়া বিভাগ বলছে, সেপ্টেম্বরের ১৫ তারিখের আগে ভারি বৃষ্টির তেমন সম্ভাবনা নেই। এক্ষেত্রে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ও ঘন এই বনাঞ্চলের ‘মরণদশা’ শিগগিরই কাটছে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন তারা।

এদিকে সোমবার জি-সেভেন সম্মেলনের শেষ দিনে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ জানিয়েছেন, আমাজনের আগুন নিয়ন্ত্রণে জোটভুক্ত দেশগুলো দুই কোটি ২০ লাখ ডলার দিতে রাজি হয়েছে। এরপরই জি-সেভেনের অর্থ সহায়তার প্রস্তাবের বিষয়ে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারোর চিফ অব স্টাফ অনিক্স লোরেনজোনি গ্লোবো নিউজ ওয়েবসাইটকে বলেন, ‘ধন্যবাদ, কিন্তু সম্ভবত ওই সম্পদগুলো ইউরোপে বনায়ন করার কাজে লাগালে বেশি প্রাসঙ্গিক হবে।’ স্থানীয় বনকে কীভাবে রক্ষা করতে হয় ব্রাজিল তা যে কোনো দেশকে শেখাতে পারবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এছাড়া ফ্রান্স তাদের সঙ্গে উপনিবেশের মতো আচরণ করছে বলে অভিযোগ করেছেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট বোলসোনারো। আমাজনের অগ্নিকাণ্ড নিয়ন্ত্রণে ব্রাজিল সরকার কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না- বিশ্বব্যাপী এমন সমালোচনার মুখে ফ্রান্স ও আয়ারল্যান্ড দক্ষিণ আমেরিকার দেশগুলোর সঙ্গে একটি মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি অনুমোদন না করার হুমকিও দিয়েছে। ব্রাজিল ছাড়াও ওই চুক্তিতে আর্জেন্টিনা, উরুগুয়ে ও প্যারাগুয়ে আছে। বিবিসি জানিয়েছে, আমাজনের আগুন ‘নিয়ন্ত্রণহীন’ হয়ে পড়েনি বলে দাবি করেছেন ব্রাজিলের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ফের্নান্দো আজেভেদো ই সিলভা। আমাজনে আগুন ও পরিবেশগত অপরাধের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য ৪৪ হাজার সেনা মোতায়েন করা হয়েছে বলে জানান তিনি। ব্যবহার করা হচ্ছে যুদ্ধবিমানও।

ব্রাজিলের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইনপের তথ্য অনুযায়ী, দেশটিতে রেকর্ডসংখ্যক আগুন জ্বলছে, যার অধিকাংশই আমাজন বনাঞ্চল এলাকায়। আমাজনের দুর্দশার জন্য পরিবেশবাদীরা ব্রাজিল সরকারকেই দুষছে।

তাদের অভিযোগ, ব্রাজিলের কট্টর ডানপন্থী প্রেসিডেন্ট বোলসোনেরোর নীতিই কৃষক, কাঠুরে ও চোরাকারবারিদের বন উজাড়ে উৎসাহ দিচ্ছে।

বিশ্বের সবচেয়ে বড় চিরহরিৎ বনাঞ্চল আমাজন বিপুল পরিমাণ কার্বন সঞ্চিত রেখে বৈশ্বিক উষ্ণতার গতি খানিকটা শ্লথ রেখেছে।

৩০ লাখেরও বেশি প্রজাতি ও উদ্ভিদের পাশাপাশি ১০ লাখ আদিবাসী মানুষের এ আবাসস্থলটি ‘পৃথিবীর ফুসফুস’ নামেও পরিচিত। পৃথিবীতে মোট অক্সিজেনের প্রায় ২০ শতাংশই সরবরাহ করে আমাজন। প্রতি বছরই দাবানলের ঘটনা ঘটে ব্রাজিলে। তবে এবারের মাত্রা উল্লেখযোগ্য রকমের বেশি, কয়েকদিন ধরে দাউ দাউ করে জ্বলছে এই অরণ্য।









Leave a reply