যুক্তরাষ্ট্র, ইসরাইল ও আমিরাতের গোপন বৈঠক ফাঁস!

|

ইরানের বিরুদ্ধে হোয়াইট হাউসে গোপন বৈঠক করেছে যুক্তরাষ্ট্র, ইসরাইল ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। গত বছরের ১৭ ডিসেম্বর এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে বলে আমেরিকান নিউজের বরাত দিয়ে বুধবার তুর্কি গণমাধ্যম ইয়েনি শাফাক এ খবর জানায়।

এদিকে নিউইয়র্ক ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম অ্যাক্সিয়োস অনলাইনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওই বৈঠকে ইরানের বিরুদ্ধে সমন্বয় করে মোকাবেলা এবং আরব আমিরাত ও ইসরাইলের মধ্যে একে অপরের বিরুদ্ধে সামরিক আক্রমণ না করার বিষয়ে চুক্তি নিয়ে আলোচনা করা হয়।

মার্কিন প্রতিনিধি দলের মধ্যে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা রবার্ট ওব্রায়েন, তার উপ ভিক্টোরিয়া কোটস এবং ইরানের জন্য ওয়াশিংটনের বিষেশ দূত ব্রায়ান হুক উপস্থিত ছিলেন।

ওই বৈঠকে ইসরাইলের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মীর বেন শব্বাত ও ওয়াশিংটনে নিযুক্ত আমিরাতের রাষ্ট্রদূত ইউসুফ আল ওতাইবা।

অ্যাক্সিয়োসের প্রতিবেদনে বলা হয়, সংযুক্ত আরব আমিরাতের ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন জায়েদের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত রাষ্ট্রদূত ওতাইবা।

গত সপ্তাহে হোয়াইট হাউসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যখন নেতানিয়াহুর সঙ্গে ইসরাইল-ফিলিস্তিনি পরিকল্পনা ঘোষণা করছিলেন তখন সেখানে উপস্থিত ছিলেন ওয়াশিংটনে নিযুক্ত আমিরাতে রাষ্ট্রদূত ওতাইবা।

প্রতিবেদনে বলা হয়, নেতানিয়াহু তেহরানের বিরুদ্ধে সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে একটি গোপন জোট অগ্রসর করতে কঠোর পরিশ্রম করেছেন। এতে বলা হয়, পোল্যান্ডের ওয়ারশায় মার্কিন নেতৃত্বাধীন একটি সম্মেলনে তিনি (নেতানিয়াহু) একই পদক্ষেপ নিয়েছিলেন।

২০১৯ সালে ওই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। যেখানে লক্ষ্য ছিল মধ্যপ্রাচ্য থেকে ইরানকে বিচ্ছিন্ন করা। ওই সম্মেলন শেষে ট্রাম্প প্রশাসন একটি ত্রিপাক্ষিক ফোরামও গঠন করে।









Leave a reply