অসুস্থ মাকে ছাদ থেকে ফেলে হত্যা করলেন অধ্যাপক

|

পক্ষাঘাতগ্রস্ত মাকে ছাদ থেকে ধাক্কা মেরে ফেলে হত্যা করলো ছেলে। পরে এই হত্যাকাণ্ডকে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেয় এই পাষণ্ড। ভারতের গুজরাটের রাজকোট জেলাতে এই নৃশংস ভয়ঙ্কর ঘটনা ঘটে। আর এই ঘটনা ঘটায় রাজকোট কলেজের সহকারী অধ্যাপক সন্দীপ নাথওয়ানি। খবর ইন্ডিয়া টুডে’র

গতবছরের সেপ্টেম্বরে হঠাৎ করেই মা জয়শ্রী নাথওয়ানি মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণের ফলে হাসপাতালে ভর্তি হোন। এরপর তিনি পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়ে পড়েন। দেখভালের দায়িত্ব পরে ছেলে সন্দীপের। কিন্তু কিছুদিনের মধ্যেই ছেলের আসল চেহারা বেরিয়ে আসে। বিরক্ত হয়ে ২৭ সেপ্টেম্বরে মাকে চার তলার ছাদ থেকে ফেলে দিয়ে পুলিশের কাছে আত্মহত্যার গল্প ফাঁদে। পুলিশও বিশ্বাস করে।

কিন্তু  সবকিছু উল্টে যায় পুলিশের কাছে একটি ফোন আসার পর। তারপরই বাসার সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায় যে, হত্যাকাণ্ডের দিন ছেলে সন্দীপ তার পক্ষাঘাতগ্রস্ত মাকে যিনি হাঁটতে পর্যন্ত পারছিলোনা। তাকে টেনে-হিঁচড়ে জোর করে ছাদে নিয়ে যায়, ছাদ থেকে ফেলে দিয়ে বাসায় ফিরছে। এমনকি প্রতিবেশীরা যখন জানায় ছাদ থেকে পড়ে গেছে তার মা তখন সে বিস্ময়ের অভিনয়ও করে।   

 

পুলিশ সিসিটিভির ফুটেজ থেকে বুঝতে পারে যে চারতলা পর্যন্ত ওঠার সামর্থ নেই জয়শ্রী’র, তাহলে আত্মহত্যা করলো কিভাবে?। পুলিশ জানায় এটা স্পষ্টভাবে বুঝা যাচ্ছে ছেলে সন্দীপ তার মাকে ছাদ থেকে ফেলে হত্যা করেছে।  এরপরই সন্দীপকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয়েছে।

টিবিজেড/

 

হত্যার জন্য মাকে ছাদে নিয়ে যাচ্ছেন ছেলে!

নিষ্ঠুরতার চুড়ান্ত……হত্যার জন্য মাকে ছাদে নিয়ে যাচ্ছে পাষণ্ড ছেলে! বিস্তারিত পড়ুন: https://www.jamuna.tv/news/13192

Posted by Jamuna Television on Saturday, January 6, 2018









Leave a reply