নরেন্দ্র মোদিকে রিয়া সম্পর্কে চাঞ্চল্যকর তথ্য দিলো সুশান্তের পরিবার

|

সুশান্ত ও প্রেমিকা রিয়া

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দ্বারস্থ হল সুশান্ত সিংহ রাজপুতের পরিবার। মোদিকে এবার তারা সুশান্তের প্রেমিকা রিয়া সম্পর্কে অস্বাভাবিক তথ্য প্রদান করেছে।

প্রধানমন্ত্রী মোদিকে এক খোলা চিঠিতে সুশান্তের দিদি শ্বেতা সিংহ আবেদন করে বলেন, তিনি (মোদি) যেন হস্তক্ষেপ করে সুশান্তকে ন্যায়বিচার পেতে সাহায্য করেন। ভারতীয় বিচারব্যবস্থার প্রতি যে তার অগাধ আস্থা রয়েছে, সে কথাও সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই চিঠিতে জানান শ্বেতা।

এক টুইটার পোস্টে শ্বেতা লেখেন, ‘আমরা এবং আপনি (মোদি), খুব সাধারণ পরিবার থেকে আজ এই জায়গায় পৌঁছেছি। আমার ভাইয়ের কোনও গডফাদার ছিল না। এখনও নেই। আপনার কাছে আমার একান্ত অনুরোধ, আপনি নিজে এই গোটা ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করুন। আমরা ন্যায়বিচার চাই।’

এদিকে সুশান্তের বন্ধু সিদ্ধার্থ পিঠানি সুশান্তের পরিবারের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ এনেছেন। শুক্রবার এক ইমেইলে মুম্বাই পুলিশকে তিনি জানান, রিয়ার বিরুদ্ধে বয়ান দেওয়ার জন্য তাকে নাকি রীতিমতো জোর করা হচ্ছে সুশান্তের আত্মীয়দের তরফে। ওই ইমেইলে সিদ্ধার্থ লেখেন, ‘আমাকে বলা হয়েছিল, একটা ফোন কল আসবে। তার কিছুক্ষণ পরেই আমার হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরে একটি কল আসে। ৪০ সেকেন্ডের মাথায় সেই ফোন কেটেও যায়। রিয়ার বিরুদ্ধে কথা বলার জন্য আমায় ক্রমাগত জোর করা হচ্ছে।’

তবে সুশান্তের আইনজীবী বিকাশ সিংহের দাবি এই অভিযোগ অসত্য। মিথ্যে বলছেন সিদ্ধার্থ। বিকাশ সিংহের বক্তব্য, কিছু দিন আগে পর্যন্ত রিয়ার বিরুদ্ধে কথা বললেও হঠাৎ করেই এখন অন্য সুর সিদ্ধার্থের গলায়। তিনি সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘জুলাইয়ের ২৫ তারিখ পর্যন্ত সুশান্তের পরিবারের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছিলেন সিদ্ধার্থ। এমনকি, সুশান্তের যা অবস্থা তাতে রিয়াকেই দায়ী করছিলেন তিনিও। হঠাৎই যেন ভোলবদল তার। এই মামলায় সিদ্ধার্থের ভূমিকা আসলে কী, তা যেন যত দ্রুত পুলিশ অনুসন্ধান করে বের করে।’

এরই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার প্রথম মুখ খুলেছেন রিয়া চক্রবর্তি। বিহার পুলিশের কাছে তার নামে দায়ের হওয়া এফআইআরের পর এই প্রথম সুশান্তের অস্বাভাবিক মৃত্যু প্রসঙ্গে কথা বললেন তিনি। রিয়ার বক্তব্য, ‘আমার সম্পর্কে সংবাদমাধ্যমে ভয়ানক সব কথাবার্তা বলা হচ্ছে। এ বিষয়ে আমার আইনজীবী কিছু বলতে বারণ করেছেন। দেশের বিচারব্যবস্থার উপর যথেষ্ট আস্থা রয়েছে। আমি বিচার পাবো। সত্যিটা অবশ্যই সামনে আসবে।’

সুশান্ত মৃত্যুরহস্যের তদন্তে বিহার পুলিশ শনিবার সকাল থেকেই তৎপর। শুটিংয়ের সেটে সুশান্তের আচরণ কেমন ছিল তা জানতে আজ শনিবার তারা বয়ান রেকর্ড করতে পারে সুশান্তের শেষ ছবি ‘দিল বেচারা’-র কিছু সদস্যের।









Leave a reply