কুবির দুই শিক্ষকের ঘটনায় বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিক সংগঠনের নিন্দা

|

গণমাধ্যমে তথ্য দেওয়ার অভিযোগে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) সিন্ডিকেটে এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থার সুপারিশ এবং অভিজ্ঞতার সনদে ‘টু রেজিস্ট্রার’ না লেখায় আরেক শিক্ষককে পদোন্নতি দিয়ে আবার স্থগিত করার ঘটনায় নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত সাংবাদিকদের সংগঠন।

সংগঠনগুলো তাদের বিবৃতিতে গণমাধ্যমে তথ্য দেওয়াকে কোনো অপরাধ নয় বলে উল্লেখ করে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক মাহবুবুল হক ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে নেওয়া সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি জানান। একই সাথে তারা গণমাধ্যমের তথ্যদাতা খোঁজাকে অগণতান্ত্রিক এবং স্বাধীন সাংবাদিকতার পথে বাধা হিসেবে উল্লেখ করে।

এদের মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি তদন্ত কাজে মাহবুবুল হক ভূঁইয়ার ‘কল রেকর্ড সংগ্রহ করা’র বিষয়ে তাদের বিবৃতিতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। তারা বলেছে, বাংলাদেশের আইন অনুযায়ী রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা রক্ষার দায়িত্বে নিয়োজিত বাহিনী ছাড়া অন্য কেউ কল রেকর্ড সংগ্রহ করতে পারে না।

অন্যদিকে, একই বিভাগের আরেক শিক্ষক কাজী আনিছকে পদোন্নতি দিয়ে স্থগিত করার ঘটনাকে সংগঠনগুলো দুরভিসন্ধিমূলক সিদ্ধান্ত, ও শিক্ষা ব্যবস্থার অশনিসংকেত হিসেবে উল্লেখ করেছে। এছাড়া এ ঘটনা সমাজে বিশ্ববিদ্যালয়ের মর্যাদা বিনষ্ট করছে বলেও উল্লেখ করে সংগঠনগুলোর নেতৃবৃন্দ।

এ পর্যন্ত এই ঘটনায় বিবৃতি দেওয়া সংগঠনগুলোর মধ্যে রয়েছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাব, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, হাজী দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, রাজশাহি বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার্স ইউনিটি, বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, গণ বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি সাংবাদিক সমিতি সহ আরও বেশ কয়েকটি সাংবাদিক সংগঠন।









Leave a reply