মোদির হস্তক্ষেপে সাজা মওকুফ হলো বিএসএফ জওয়ানের

|

ভারতের প্রধানমন্ত্রীর নাম উচ্চারণের আগে ‘মাননীয়’ না বলায় এক জওয়ানকে সাজা দিয়েছিলো বিএসএফ। কেটে নেয় এক সপ্তাহের বেতন। কিন্তু এমন খবর শুনে অসন্তুষ্ট হন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি তাৎক্ষনিকভাবে বিএসএফকে নির্দেশ দিয়েছে দণ্ডাদেশ প্রত্যাহারের জন্য। বাহিনীর এক মুখপাত্র এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছেন।

ঘটনা ছিলো ২১ ফেব্রুয়ারির। পশ্চিমবঙ্গের নদীয়ায় বিএসএফ এর পঞ্চদশ ব্যাটালিয়ন সদর দপ্তরে সেদিন রুটিন প্যারেড চলছিলো। এক পর্যায়ে রিপোর্টের পালা আসে কনস্টেবল সঞ্জীব কুমারের। কিন্তু তিনি ‘মোদি প্রোগ্রাম’ শব্দটি উচ্চারণের আগে সম্মানসূচক মাননীয় বা শ্রী শব্দটি  বলেননি।

ব্যাটালিয়নের কমান্ডিং অফিসার অনুপ লাল ভগৎ সিদ্ধান্ত নেন, এতে দেশের প্রধানমন্ত্রীকে অবমাননা করেছেন জওয়ান সঞ্জীব। বিএসএফ অ্যাক্টের ৪০ নম্বর সেকশন অনুযায়ী তাকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়ে। সাজা হিসেবে তার ৭ দিনের বেতন কেটে নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এমন শাস্তির খবরে বিস্মিত বিএসএফের সাবেক কর্তাব্যক্তিরা। গণমাধ্যমকে দেয়া প্রতিক্রিয়ায় অনেকেই জানান, এমন ঘটনা অনাকাঙ্খিত। ওই জওয়ানের বিরুদ্ধে একটু বেশিই কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী মোদির নির্দেশ মোতাবেক ব্যবস্থা নেয়ার পর বিএসএফ থেকে জানানো, কমান্ডিং অফিসার অনুপ লালকে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে ভবিষ্যতে বিচারিক কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার ব্যাপারে।

 









Leave a reply