সাক্ষাৎ করিয়ে দেয়ার কথা বলে ঘুষ নিয়েছিলো ট্রাম্পের আইনজীবী

|

নতুন বিতর্কে জড়ালেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাবেক ব্যক্তিগত আইনজীবী মাইকেল কোহেন। অভিযোগ উঠেছে, হোয়াইট হাউজের সাথে আলোচনায় বসার ব্যবস্থা করে দেয়ার জন্য ইউক্রেনের কাছ থেকে অন্তত চার লাখ ডলার ঘুষ নিয়েছিলেন তিনি।

২০১৭ সালের জুনে ট্রাম্পের সাথে হোয়াইট হাউজে দেখা করেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট পেত্রো পোরোশেঙ্কো। বলা হচ্ছে, এ বৈঠক আয়োজনে কোহেনকে অর্থ দেন পোরোশেঙ্কো’র সহকারীরা। যদিও তখন ইউক্রেন ইস্যুতে মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকা ছিল না কোহেনের।

কিয়েভের এক শীর্ষ গোয়েন্দা কর্মকর্তার বরাতে জানা গেছে, সেসময় পোরোশেঙ্কো ওয়াশিংটন থেকে ফেরার পরই ট্রাম্পের সাবেক সহযোগী পল ম্যানাফোর্টের বিরুদ্ধে তদন্ত বন্ধ করে দেয় ইউক্রেনের দুর্নীতিবিরোধী সংস্থা। বরাবরের মতো এ অভিযোগও অস্বীকার করেছেন কোহেন। এ ব্যাপারে এখনও আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া আসেনি ট্রাম্প প্রশাসন বা ইউক্রেনের তরফ থেকে।

এর আগে ট্রাম্পের সাথে সম্পর্ক নিয়ে মুখ বন্ধ রাখতে পর্নতারকা স্টর্মি ড্যানিয়েলসকে দেড় লাখ ডলার দেয়ার অভিযোগ ওঠে কোহেনের বিরুদ্ধে।









Leave a reply