অনলাইন ‘মোটিভেশন গুরু’র ভণ্ডামি ফাঁস করলেন বাসার মালিক!

|

অনলাইনে তার ১১ লাখ ফলোয়ার। অনেকেই তাকে ‘মোটিভেশন গুরু’ হিসেবে মনে করেন। তার সুন্দর-গোছানো-ছিমছাম লাইফ স্টাইল দেখে উৎসাহিত হন। বিভিন্ন হোটেলে সুন্দর রুমে দিন কাটানোর ছবি পোস্ট করেন নিজের সামাজিক মাধ্যম একাউন্টে। ভালো ভালো রেস্টুরেন্টে খাবার খেয়ে সেগুলো পোস্ট করেন।

এছাড়া নানা ইস্যুতে নিয়মিত নিজের অনুসারীদের ভাল কাজ করার, ঘরদোর সুন্দর ও গোছিয়ে রাখার পরামর্শ দেন। সব মিলিয়ে লাখো তরুণের কাছে তিনি একজন ‘আদর্শ’।

কিন্তু তার এই ইমেজকে সাংঘাতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করলেন তিনি যে বাসায় ভাড়াটিয়া থাকেন সেটার মালিক।

ঘটনাটি ঘটেছে চীনে। অনলাইন তারকার নাম লি। বেশ কিছু দিন ধরে তার বাসার মালিক তাকে ফোন করে পাচ্ছিলেন না। লি’র ফ্ল্যাটের বিল বকেয়া পড়েছে বেশ কিছু দিন ধরে। এছাড়া লি নিজের ফ্ল্যাট এত ময়লা করে রেখেছেন যে, তা থেকে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছিলো। কুকুরের বর্জ্য পর্যন্ত জমে আছে কয়েক মাস ধরে। পচা খাবার ফ্লোরে পড়ে আছে। পেশাদার পরিচ্ছন্নতা কর্মী ডেকেও ফ্ল্যাটটি পরিষ্কার করাতে পারেননি মালিক। কর্মীরা এত ময়লা পরিষ্কারে রাজি নন।

এমন পরিস্থিতিতে লিকে ফোন করে একাধিকবার না পেয়ে পুলিশের আশ্রয় নেন মালিক। এরপর স্থানীয় একটি মিডিয়ায় এই খবর প্রকাশিত হয়। সাংবাদিকের ক্যামেরায় ধরা পড়ে লি’র নোংরা বাসার বেহাল দশা।

বাসার ছবি ও ফুটেজ অনলাইনে ছড়িয়ে পড়তেই ভক্তদের অনেকে ক্ষেপে যান। চীনের সামাজিক মাধ্যমে সিনা ওয়েইবো’তে লি’র একাউন্টে হাজারো কমেন্ট পড়তে থাকে। অন্তত ৬০ হাজার ফলোয়ার জানিয়েছেন তারা লি’কে আনফলো করছেন। কারণ, তিনি অনলাইনে যেমনভাবে নিজেকে উপস্থাপন করেন বাস্তব জীবনে তিনি তার উল্টো চলেন। অর্থাৎ, তিনি একজন ভণ্ড!

পরে অবশ্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন লি। বাসার মালিকের কাছে গিয়ে ক্ষমা চাওয়া ও ঘর পরিষ্কারের ভিডিও পোস্ট করেছেন তার একাউন্টে। জানিয়েছে, বেশ কিছুদিন ধরে বাসার বাইরে থাকার কারণে তিনি মালিকের সাথে যোগাযোগ করতে পারেননি।

সূত্র: বিবিসি।









Leave a reply