চাকরির জন্য বাবাকে খুন

|

সরকারি চাকরি যেন সোনার হরিণ। বাংলাদেশ তো বটেই প্রতিবেশি ভারতেও একই অবস্থা। তাই বলে সরকারি চাকুরি পেতে বাবাকে খুন করবে কোনো সন্তান!

ভারতের ভারতের পাণ্ডবেশ্বরের কুমারডিহিতে বুধবার ভয়ঙ্কর ঘটনাটি ঘটেছে।

রাষ্ট্রায়ত্ত ইসিএল প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ছিলেন নিহত মৃত্যুঞ্জয় কুমার। তার অবসরে যাওয়ার কথা ছিল আগামী ৩১ মার্চ।

পুলিশের কাছে জবানবন্দিতে বাবাকে খুনের কথা স্বীকার করেছে ছেলে মুকেশ।

পুলিশ জানিয়েছে, মাথায় আঘাতের পর শ্বাসরোধ করে বাবাকে খুন করে মুকেশ। খুনের দায় স্বীকার করে জবানবন্দীও দিয়েছে সে।

ভারতে সরকারি চাকরিরত অবস্থায় কোনো কর্মী মারা গেলে পরিবারের বড় ছেলে সে চাকরিটি পেয়ে থাকে।

চাকরির লোভেই মুকেশ এমন জঘন্য কাণ্ডটি ঘটিয়েছে বলে পুলিশের কাছে স্বীকারোক্তি দিয়েছে।

যমুনা অনলাইন: এফএইচ









Leave a reply